মেয়েদের ওজন কমানোর ডায়েট চার্ট

মেয়েদের ওজন কমানোর যে ডায়েট চার্ট এখানে লেখা আছে তা স্টেপ বাই স্টেপ মেনে চলবেন। সকাল, দুপুর ও রাতে কি কি কতটা পরিমান খাবেন তা তিন ভাগে বলা হল। সারাদিনের ক্যালোরির ভাগ করে নিন। ৫০ ভাগ ক্যালোরি সকালে খান। ৩৬ ভাগ দুপুরে আর ১৪ ভাগ রাতে।

মেয়েদের ওজন কমানোর ডায়েট চার্ট

সকালের ডায়েট

সকালে উঠে একগ্লাস উষ্ণ গরম জলে একটি পাতিলেবুর রস মিশিয়ে খান। সপ্তাহে একদিন অন্তর এক দিন খাবেন। বাকি চারদিন পান করুন আদা, হলুদ আর আমলকী সেদ্ধ করা জল। ওজন কমানোর সাথে সাথে শরীরের জন্য ও স্কিনের জন্য এটা খুবই উপকারি।

সকালে উঠে পানীয় পান করার ৩০ মিনিট পর প্রাতরাশ বা ব্রেকফাস্ট করে নিন। অনেকেই সকালের খাওয়ার স্কিপ করেন। এটা একদম করবেন না। বরং ব্রেকফাস্ট হেভি করা উচিত। দুটো রুটি, এক বাটি তরকারি ও একটা ডিম সেদ্ধ খান। কোনদিন চারটে পাউরুটি অল্প মাখন লাগিয়ে ২টো ডিম সেদ্ধ দিয়ে খান। পাউরুটিতে চিনি লাগাবেন না। চিনি ছাড়া খান। সামান্য গোলমরিচ ছড়িয়ে নিন। আপেল, আঙুর, পেঁপে বা মরশুমি যেকোনো ফল ব্রেকফাস্টে খান একটা। আঙুর খেতে ১০টা মত খান তার বেশি না। তাছাড়া পোহা, দুধ রুটি বা হালকা বয়েল করা সব্জির সুপ খেতে পারেন। এক একদিন এক এক রকমের খাওয়ার খান সকালে।

দুপুরের ডায়েট

ভাত ছাড়া যেহেতু বাঙালির চলে না, তাই দুপুরে ভাত খান। তবে এক বাটির বেশি না। সাথে দুটো বা একটা রুটি খান। ডাল, সবজি, মাছ যা আপনার বাড়িতে রান্না হচ্ছে তা খান। তবে তেল মশলা কম দেওয়া খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। পেট ভরে খান কিন্তু ভাত গাদা গাদা না। ওই যে বললাম এক বাটি। বাকি পদ খান। খালি পেটে আপনাকে ওজন কমাতে হবে না।

দুপুরে খাওয়ার পর ভাত-ঘুম দেওয়ার যাদের অভ্যাস আছে তারা সেটা বন্ধ করুন। খেয়ে উঠে বালিশ নিয়ে ঘুমানো চলবে না যদি ওজন কমাতে চান।

রাতের ডায়েট

ভাত না খেলে খুবই ভালো হয়। তবে যদি ভাত ছাড়া একদমই না চলে তাহলে হাফ বাটি ভাত। এর চেয়ে বেশি নয়। সাথে একটা রুটি। ডাল এক বাটি আর তরকারি এক বাটি। রাতে মাছ, মাংস ও ডিম না খাওয়াই ভালো।

রাতের খাওয়া রাত আটটা থেকে নটার মধ্যে করে ফেলুন। খেয়ে উঠেই ঘুমাতে যাবেন না। রাতের ডিনার সারার পর একঘণ্টা পর ঘুমোতে জান।

খিদে পেলে কি করবেন

এসবের মাঝে যদি খিদে পায় তাহলে একটা ফল খান। ফল খেলে আপেল খাবেন। এতে মিষ্টি কম থাকে। কখনও ৬টা কাজুবাদাম, ৬টা কাঠবাদাম খেয়ে জল খান। দেখবেন পেট ভরে গিয়েছে। চাইলে ক্রিম ক্রেকার বিস্কুট সাথে রাখতে পারেন। আচমকা পাওয়া খিদে কমাতে দারুন কাজ করে।

উপরে বলা ডায়েট চার্ট সঠিক ভাবে মানুন। দেখবেন একমাসের মধ্যে অনেকটা হালকা বোধ করছেন। বাইরের খাওয়া, কোল্ড ড্রিংকস এসব থেকে দূরে থাকুন এই ডায়েট মানার সাথে সাথে। একটা কথা মনে রাখবেন আপনি নিজে না চাইলে পৃথিবীর কোন ডায়েট চার্ট আপনার ওজন কমাতে পারবে না। তাই যা যা বলা হল করুন, ভালো বই খারাপ ফল পাবেন না।

নবীনতর পূর্বতন